www.banglarkontho.net
  • ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

    অল্প সময়ে সংবিধান প্রণয়ন অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

    অল্প সময়ে সংবিধান প্রণয়ন অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী
    ফাইল ছবি
    শেয়ার করুন

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের সুদূরপ্রসারী এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অতি অল্প সময়ের মধ্যে সংবিধান প্রণয়ন বাঙালির জাতীয় জীবনে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। সংবিধান প্রণয়নের সুবর্ণজয়ন্তীতে ৪ নভেম্বরকে ‘জাতীয় সংবিধান দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা আওয়ামী লীগ সরকারের একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।

    ‘জাতীয় সংবিধান দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব এ কথা বলেন।

    শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে আমাদের মুক্তি-সংগ্রামের ইতিহাস ও সংবিধানের চেতনা ধারণের জন্য জাতীয় সংবিধান দিবস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’

    জাতীয় সংবিধান দিবস উপলক্ষে দেশের নাগরিকদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, ৪ নভেম্বর বাঙালি জাতির এক ঐতিহাসিক দিন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দীর্ঘ ২৩ বছরের রাজনৈতিক সংগ্রাম ও ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয়ের মাত্র ১১ মাসের মধ্যে এদিনে গৃহীত হয়েছিল বাঙালি জাতির অধিকারের দলিল, বহুল আকাঙ্ক্ষিত গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান।

    শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি দেশে ফিরে আসেন। তিনি ১৯৭২ সালের ১১ জানুয়ারি প্রোভিসনাল কনসস্টিটিউশান অব বাংলাদেশ অর্ডার, ১৯৭২ জারি করেন, যা দ্বিতীয় সংবিধান নামে খ্যাত।

    একটি পূর্ণাঙ্গ ও স্বয়ংসম্পূর্ণ সংবিধান রচনার উদ্দেশ্যে ১৯৭২ সালের ২৩ মার্চ কনস্টিটিউয়েন্ট অ্যাসেম্বলি অব বাংলাদেশ অর্ডার, ১৯৭২ জারি করা হয় জানিয়ে তিনি বলেন, উক্ত আদেশের অধীন ১৯৭০ সালের পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচনে নির্বাচিত জাতীয় পরিষদের সদস্য এবং প্রাদেশিক পরিষদের সদস্যদের নিয়ে গণপরিষদ গঠিত হয়। গণপরিষদকে সংবিধান প্রণয়নের দায়িত্ব অর্পণ করা হয়।

    ১৯৭২ সালের ১০ এপ্রিল গণপরিষদের প্রথম অধিবেশনে ৩৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি খসড়া সংবিধান প্রণয়ন কমিটি গঠন করা হয়। ১২ অক্টোবর গণপরিষদের দ্বিতীয় অধিবেশনে খসড়া সংবিধান বিল আকারে উত্থাপন করা হয়। ৪ নভেম্বর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান গণপরিষদে গৃহীত হয়।

    প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আজীবন লালিত স্বপ্ন ছিল একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার। যেখানে সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক সুবিচার নিশ্চিত হবে। বঙ্গবন্ধুর এই লালিত স্বপ্নকে বাস্তবে রূপদানের জন্যই গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের প্রস্তাবনায় ঘোষণা করা হয় যে, রাষ্ট্রের অন্যতম মূল লক্ষ্য হবে- গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে এমন একটি শোষণমুক্ত সমাজতান্ত্রিক সমাজের প্রতিষ্ঠা, যেখানে সকল নাগরিকের জন্য আইনের শাসন, মৌলিক মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সাম্য, স্বাধীনতা ও সুবিচার নিশ্চিত হবে।

    প্রধানমন্ত্রী ‘জাতীয় সংবিধান দিবস’ উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

    • সর্বশেষ

    জলবায়ু পরিবর্তনে আয় কমবে সাধারণ মানুষের

    এপ্রিল ১৯, ২০২৪ ৯;২৯ পূর্বাহ্ণ

    ভোটের আগে ভারতের নির্দেশে পোস্ট ব্লক করল এক্স

    ৯;২৮ পূর্বাহ্ণ

    সন্ত্রাসীদের হত্যার বিষয়ে মোদির মন্তব্য নিয়ে যা বলল যুক্তরাষ্ট্র

    ৯;২৬ পূর্বাহ্ণ

    ইরানের ওপর চাপ বাড়াচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো

    ৯;১৯ পূর্বাহ্ণ

    অনড় নেতানিয়াহু, ইরানের ব্যাপারে ইসরায়েল নিজেই সিদ্ধান্ত নেবে

    ৯;১৭ পূর্বাহ্ণ

    উপজেলা নির্বাচন : মন্ত্রী-এমপির প্রার্থীদের সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ

    ৯;০৯ পূর্বাহ্ণ

    চাঞ্চল্যকর মামলার আপিল শুনানিতে গতি নেই

    এপ্রিল ১৭, ২০২৪ ১১;৪৯ অপরাহ্ণ

    দ্বীপ উন্নয়ন আইন করতে সংসদকে হাইকোর্টের পরামর্শ

    ১১;৪৪ অপরাহ্ণ

    চিকিৎসকদের উপর হামলা কিংবা চিকিৎসায় অবহেলা মেনে নিব না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

    ১১;৪১ অপরাহ্ণ

    ‘অনিবন্ধিত ও অবৈধ নিউজ পোর্টাল বন্ধে পদক্ষেপ নেয়া হবে’

    ১১;৩৪ অপরাহ্ণ

    মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

    ১১;৩১ অপরাহ্ণ

    ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রত্যেক কাউন্সিলর মাসে ৫০ হাজার টাকা পাচ্ছেন

    ১১;২৮ অপরাহ্ণ

    সিটি নয়, সরকারি ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হতে চায় বেসিক

    ১০;০৬ অপরাহ্ণ

    ১০০ হলে আসছে ‘ডেডবডি’

    ১০;০৩ অপরাহ্ণ

    ওই পরিমাণ আয় করতে ১৫টি সিনেমা করতে হতো : রাভিনা

    ১০;০১ অপরাহ্ণ

    শুটিংয়ে আহত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

    ৯;৫৯ অপরাহ্ণ

    ভারত-পাকিস্তান এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পারবে না

    ৯;৫৬ অপরাহ্ণ

    বার্সাকে বিদায় করে যে স্বপ্নের কথা জানালেন এমবাপ্পে

    ৯;৫২ অপরাহ্ণ

    বার্সার হারে লাভ হলো অ্যাতলেতিকোর

    ৯;৫০ অপরাহ্ণ

    ওমানে ভারি বর্ষণে ১৮ মৃত্যু, বন্যায় বিপর্যস্ত আমিরাত

    ৯;৪৭ অপরাহ্ণ

    Copyright Banglar Kontho ©2024

    Design and developed by Md Sajibul Alom Sajon


    উপরে